সংস্করণ: ২.০১

স্বত্ত্ব ২০১৪ - ২০১৭ কালার টকিঙ লিমিটেড

mustafiz-cricket-banglabash.jpg

এবার চাই বাংলাওয়াশ আরেকবার গর্জে ওঠো মুস্তাফিজ

বিশেষ করে আজকের ম্যাচে ৪৫ ওভার খেলে ভারত যেখানে সব কটি উইকেট হারিয়ে রান করেছে মাত্র ২০০, সেখানে বাংলাদেশ মাত্র ৩৮ ওভার খেলে ৪ উইকেট হারিয়ে পৌঁছে যায় কাঙ্খিত লক্ষ্যে!

এখন আর হঠাৎ করে জিতে যাওযা কোন দল নয় বাংলাদেশ। বাংলাদেশ এখন যোগ্যতর দল হিসেবেই তার লক্ষ্য নির্দ্ধারন করতে চায়। ইতোমধ্যে আজকের বিজয়ের মাধ্যমে দেশ আগামী ২০১৭ সালে অনুষ্ঠিতব্য আই,সি,সি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে অংশগ্রহণ নিশ্চিত করেছে।বাংলাদেশ এখন ওয়ানডে র‌্যাংকিং এর ৭ নম্বর দল। পাকিস্তান, ওয়েষ্ট ইন্ডিজ ও জিম্বাবুয়েকে আমরা পিছনে ফেলে এগিয়ে চলছি কাঙ্খিত লক্ষ্যে।

মাত্র ১৯ বছর বয়সের 'বিস্ময় বালক' মুস্তাফিজুর রহমান মুস্তাফিজ, অভিষেক ম্যাচে ৫ উইকেট ও তার পরের ম্যাচেই (তার ক্যারিয়ারের প্রথম দুই ম্যাচে) ৬ উইকেট নিয়ে ওয়ানডে ক্রিকেটে নতুন বিশ্ব রেকর্ড সৃষ্টি করায় তাকে প্রাণঢালা অভিনন্দন! শুধু তাই নয়, সে এই দুই ম্যাচেই ম্যান অব দি ম্যাচ হওয়ারও গৌরব অর্জন করেছে। আজকের কার্টেল ওভারের (৪৭ ওভার) খেলায় দশ ওভার বল করে ৪৩ রানের বিণিমযে ৬ উইকেট নিয়ে শক্তিশালী ভারতের বিরুদ্ধে ৬ উইকেটে দলের জয়লাভে বিরাট অবদান রাখায় দেশবাসী এখন তাকে নিয়ে দারুন আশাবাদী। 

দেশবাসী চায়, সে আরেকবার গর্জে উঠে ভারতকে বাংলাওয়াশ করতে অবদান রেখে ইতিহাস সৃষ্টি করুক। তার সঙ্গে দেশবাসীর আশীর্ব্বাদ তো রয়েছেই। তাকে নিয়ে এখন বলা যেতেই পারে, সে আসলো, খেললো আর সব কিছু জয় করে নিল।

ভারতের বিরুদ্ধে পর পর দুই ম্যাচে বিজয়ের মাধ্যমে বাংলাদেশ দেশের মাটিতে টানা ১০ ম্যচে বিজয়ের রেকর্ড গড়লো! যা সত্যি দেশবাসীকে গর্বিত করেছে। বাংলাদেশ এখন আর সৌভাগ্যবশতঃ উইকেট পায় না বা ব্যাটসম্যানের ভুলের জন্যও নয়, বরং উইকেট আদায় করে নেবার যোগ্যতা অর্জন করেছে। পাল্টে গেছে বাংলাদেশের ক্রিকেটের চেহারা। কেননা ভারতের মত শক্তিশালী ক্রিকেট দলকে পর পর দুই ম্যাচে পরাজিত করা বাংলাদেশের জন্য চাট্টিখানি কথা নয়। 

বিশেষ করে আজকের ম্যাচে ৪৫ ওভার খেলে ভারত যেখানে সব কটি উইকেট হারিয়ে রান করেছে মাত্র ২০০, সেখানে বাংলাদেশ মাত্র ৩৮ ওভার খেলে ৪ উইকেট হারিয়ে পৌঁছে যায় কাঙ্খিত লক্ষ্যে! 

অভিনন্দন জানাই বাংলাদেশ ক্রিকেট দলকে, আর সেই সাথে আগামী ২৪ জুন তারিখের খেলায় ভারতকে বাংলাদেশ পরাজিত করে তাদেরকে বাংলাওয়াশ করতে সক্ষম হবে, এই আশাবাদ নিয়ে আজকের মত শেষ করছি।


এখানে প্রকাশিত প্রতিটি লেখার স্বত্ত্ব ও দায় লেখক কর্তৃক সংরক্ষিত। আমাদের সম্পাদনা পরিষদ প্রতিনিয়ত চেষ্টা করে এখানে যেন নির্ভুল, মৌলিক এবং গ্রহণযোগ্য বিষয়াদি প্রকাশিত হয়। তারপরও সার্বিক চর্চার উন্নয়নে আপনাদের সহযোগীতা একান্ত কাম্য। যদি কোনো নকল লেখা দেখে থাকেন অথবা কোনো বিষয় আপনার কাছে অগ্রহণযোগ্য মনে হয়ে থাকে, অনুগ্রহ করে আমাদের কাছে বিস্তারিত লিখুন।

Cricket, Bangladesh, India, BANvIND, tiger, banglawash, banglabash, victory, mirpur, 2015