সংস্করণ: ২.০১

স্বত্ত্ব ২০১৪ - ২০১৭ কালার টকিঙ লিমিটেড

Cow-Identify-medicine.jpg

ঔষধ দিয়ে মোটাতাজা করা গরু চেনার উপায়

অবৈধভাবে বা ঔষধ দিয়ে মোটাতাজা করা গরুর ভীড়ে প্রাকৃতিকভাবে মোটাতাজা গরুও সাধারণ ক্রেতাদের মাঝে সন্দেহের সৃষ্টি করছে। আজকাল মোটাতাজা গরু দেখলেই মনে হয় গরুটি বুঝি ঔষধ দ্বারা মোটা করা হয়েছে। ফলে বৈধ খামারীরাও ন্যায্য মূল্য পান না।

আর কিছুদিন পরই আসছে ঈদুল-আযহা। এই ঈদে মুসলমানরা প্রাণি কুরবানি করে থাকেন। গতবছরের হিসেব অনুযায়ী, প্রতি বছর ৪০-৪৫ লাখ গরু ও ১ কোটি ৮০ হাজার ছাগল কোরবানি হয় আমাদের দেশে। যার ৪০% জবাই হয় কোরবানির সময়। এজন্য প্রাণির চাহিদা ও মূল্য অনেক বেড়ে যায়। তাই অনেক অসাধু ব্যবসায়ী অসদুপায় অবলম্বন করে গরু মোটা করে থাকেন।

সাধারণত স্টেরয়েড জাতীয় ঔষধ যেমন বেটামিথাসন, ডেক্সামিথাসন, ডেক্সাভেট সহ বিভিন্ন ঔষধ প্রয়োগ করে গরু মোটা করতে পারেন অসাধু ব্যবসায়ীরা। এসব ঔষধ খাওয়ালে গরুর শরীর থেকে পানি বের হয়ে যেতে পারে না। তাই মাংসে পানি জমে গরুর শরীর মোটা হয়ে যায়। আবার ঔষধের অবশিষ্টাংশ মাংসে থেকে যেতে পারে। যা রান্না করে খেলে মানবদেহে গিয়ে নানাবিধ স্বাস্থ্যঝুঁকি বাড়াতে পারে।

তবে সকল গরুই কিন্তু অবৈধভাবে মোটাতাজা করা নয়। গরু মোটাতাজা করার বৈজ্ঞানিক ও বৈধ পদ্ধতিও আছে। তা হচ্ছে ইউরিয়া মোলাসেস পদ্ধতি (ইএমএস)। এই পদ্ধতিতে গরু প্রাকৃতিকভাবেই দ্রুত মোটাতাজা হয়ে ওঠে। বর্তমানে অনেক খামারীরাই এ পদ্ধতি অবলম্বন করছেন। গ্রামাঞ্চলে ছোট পরিসরে ২-৩ টি গরু দিয়েও এই পদ্ধতি অবলম্বন করা হচ্ছে। কিন্তু অবৈধভাবে বা ঔষধ দিয়ে মোটাতাজা করা গরুর ভীড়ে প্রাকৃতিকভাবে মোটাতাজা গরুও সাধারণ ক্রেতাদের মাঝে সন্দেহের সৃষ্টি করছে। আজকাল মোটাতাজা গরু দেখলেই মনে হয় গরুটি বুঝি ঔষধ দ্বারা মোটা করা হয়েছে। ফলে বৈধ খামারীরাও ন্যায্য মূল্য পান না।

কোরবানির সময় ব্যবসায়ীদের থেকে সাধারণ ক্রেতারাই গরু কিনবেন বেশি। তাই তাদের মাঝে ঈদের ১৫-২০ দিন পূর্ব থেকেই আতঙ্ক বিরাজ করে। আবার অনেকে মোটা গরু দেখলেই কিনতে চান না। আসুন জেনে নেই ঔষধ দিয়ে মোটাতাজা গরু চেনার সহজ উপায়।

ঔষধ দিয়ে মোটাতাজা করা গরুর লক্ষণ:
  • ঔষধ দিয়ে মোটাতাজা করা গরু সাধারণত ঝিমুনি ধরে থাকে।
  • বয়সের তুলনায় অস্বাভাবিক মোটা দেখায়।
  • এদের মাঝে চঞ্চলতা থাকে না।
  • পেটের উপর আঙ্গুল দিয়ে চাপ দিলে চাপ দেয়ার স্থানটি দীর্ঘসময় ডেবে থাকবে।
আশা করি এখন সহজেই চিনবেন ঔষধ দিয়ে মোটাতাজা করা গরু। অবশ্য অধিক সচেতনতার জন্য অভিজ্ঞ ক্রেতাকে সাথে নিয়ে যেতে পারেন। তবে একটা কথা মনে রাখবেন সকল মোটাতাজা গরুই অবৈধ ঔষধ খেয়ে মোটা হয়নি।

এখানে প্রকাশিত প্রতিটি লেখার স্বত্ত্ব ও দায় লেখক কর্তৃক সংরক্ষিত। আমাদের সম্পাদনা পরিষদ প্রতিনিয়ত চেষ্টা করে এখানে যেন নির্ভুল, মৌলিক এবং গ্রহণযোগ্য বিষয়াদি প্রকাশিত হয়। তারপরও সার্বিক চর্চার উন্নয়নে আপনাদের সহযোগীতা একান্ত কাম্য। যদি কোনো নকল লেখা দেখে থাকেন অথবা কোনো বিষয় আপনার কাছে অগ্রহণযোগ্য মনে হয়ে থাকে, অনুগ্রহ করে আমাদের কাছে বিস্তারিত লিখুন।

আতঙ্ক, ঝিমুনি, ডেক্সাভেট, ইউরিয়া-মোলাসেস-পদ্ধতি-(ইএমএস), ডেক্সামিথাসন, বেটামিথাসন, স্টেরয়েড-জাতীয়-ঔষধ, জবাই, কোরবানি, ঈদুল-আযহা, ক্রেতা, চেনার-উপায়, গরু, মোটাতাজা, ঔষধ