পরদেশী বন্ধু

কাঁদছে সিঙ্গাপুর

লি কুয়াং ইয়াও কে গভীর ভারাক্রান্ত হৃদয়ে স্মরণ করল সিংগাপুর বাংলাদেশী প্রবাসীরা



ISLAM ১৮ এপ্রিল ২০১৫, ২৩:৫৭


দেশটির সর্বত্রই এক সুনসান নীরবতা বিরাজ করছে। প্রকৃতিও যেন মাঝে মাঝে অশ্রু ঝরিয়ে দুঃখ প্রকাশ করছে, আর দুঃখ করবেই না বা কেন! ওরা যে ওদের সর্বকালের মহা মানবটিকে হারিয়েছে। তাই সিঙ্গাপুরিদের দুঃখকে ভাগ করে নেয়ার জন্য, আধুনিক সিঙ্গাপুরের জনক, লি কুয়াং ইয়াও কে গভীর ভারাক্রান্ত হৃদয়ে স্মরণ করল সিংগাপুর বাংলাদেশী প্রবাসীরা। সিঙ্গাপুর থেকে প্রকাশিত প্রবাসীদের জনপ্রিয় পত্রিকা বাংলার কন্ঠ, ২৮ মার্চ ২০১৫ ইং রাত আট টায় বাংলার কন্ঠ কার্য্যালয়ে, দিবাশ্রম হল রুমে কবিতা, ভক্তিমূলক গান আর স্মৃতিচারণের মাধ্যমে লি কুয়ান ইউকে স্মরণকরা হয়। অনুষ্ঠানের শুরুতে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়।  

অনুষ্ঠানে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন বাংলার কন্ঠ পত্রিকার সম্পাদক জনাব এ কে এম মোহসিন। পরে, সিংগাপুর বাংলাদেশ বিজনেস চেম্বার অফ কমার্স, সিংগাপুর এর কার্য্যনির্বাহী সদস্য মুন্সী শহীদুজ্জামান তার সাতাইশ বছরের দেখা সিংগাপুর, লি কুয়ান ইউ এর কর্মজীবন এবং সিংগাপুরের স্বাধীনতার ইতিহাস তুলে ধরেন তার দীর্ঘ বক্তব্যে। এর পর মি. লি এর অবকাঠামো উন্নয়ন নিয়ে বক্তব্য রাখেন আজহারুল ইসলাম বাংলাদেশ বিজনেস চেম্বার অফ কমার্স সিংগাপুর এর সাধারন সম্পাদক। আরো বক্তব্য রাখেন, বাংলার কন্ঠ পত্রিকার একনিষ্ট শুভাকাঙ্ক্ষী শহিদুল ইসলাম পিকলু, প্রবাসী ব্যাবসায়ী আহসান হাবীব, আশরাফুল আলম রবিন।

এর পর শুরু হয় লি কুয়ান কে নিয়ে স্বরচিত কবিতা আবৃতি অনুষ্ঠান, কবিতা আবৃতি। অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণ জানানো হয় বিভিন্ন কবিদের যার মধ্যে  আমিও আমন্ত্রণ পেয়েছিলাম। স্বরচিত কবিতা আবৃতি করেন মুকুল হোসেন, এম এ সবুর, মনির আহমদ, অসিত কুমার বাড়ই, জহিরুল ইসলাম, মুহাম্মদ জাহাংগীর আলম বাবু, আলমাস উদ্দিন। ইংরেজীতে স্বরচিত কবিতা আবৃতি করেন রাজীব শীল জীবন, মুহাম্মদ জাহাংগীর আলম বাবু। মি. লি স্মরণে  ইংরেজীতে আবৃতি কবিতা অনুবাদ করেন তাপস বিশ্বাস, উপদেষ্টা বাংলার কন্ঠ কালচারাল ফাউন্ডেশন। জাকির হোসেন খোকন,  সিংগাপুর নিয়ে লেখা তার নিবন্ধের অংশ বিশেষ পাঠ করেন। আমিও মি. লি স্মরণে একটি কবিতা লিখি এবং ইংরেজিতে অনুবাদ করি কিন্তু অফিসের কাজে বিশেষ ব্যস্ত থাকায় আমি অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকতে পারিনি। তাই সম্মানিত পাঠকদের উদ্দেশ্যে আমার স্বরচিত কবিতা তুলে ধরছি:

কাঁদছে সিঙ্গাপুর

তুমি অমর, তুমি অবিনশ্বর, তুমি ধরণীর প্রিয়ে,
এসেছিলে ধরাতে তুমি মহান ব্রত নিয়ে।
রঙ্গিন সাজে সাজিয়েছ, তোমার হৃদয়পুর,
তুমি হীনে অঝোর ধারায় কাঁদছে সিঙ্গাপুর।

তোমার মনের মতো করে সাজিয়েছো তুমি,
ধরণীতে স্বর্গ যেন তোমার জন্মভুমি।
মনের যত রঙ্গিন স্বপ্ন, আঁকছ তুলি দিয়ে,
শ্রদ্ধায় তোমায় স্মরি ওগো সিঙ্গাপুরি প্রিয়ে।
ঊর্মি বক্ষে এ যেন এক রূপসী মৎস কন্যা!
আপাদমস্তক অঙ্গে তাহার বইছে রুপের বন্যা।

সাজিয়েছ দেশটি তুমি, যেন একটি ফুলের ডালি,
কাঁদিয়ে বিশ্ব চলে গেলে, সকল করে খালি।
রাষ্ট্র কেমনে চালাতে হয়?
উন্নয়নের ধারা কেমনে বয়?

তোমার হাতের নিপুণ ছোঁয়া দেখেছে বিশ্ববাসী,
তুমি নিরন্তর, তুমি অক্ষয়
বিশ্বকে তুমি করেছে জয়।
শ্রদ্ধায় তোমায় স্মরণ করছি, হে অবিনাশী।

অনুষ্ঠানের দ্বিতীয় পর্বে, মি. লি স্মরণে ভক্তিমুলক গান পরিবেশন করা হয়। গানে অংশগ্রহণকরেন সোহেল রানা, মাসুদ পারভেজ অপু, মুকুল হোসেন, সেলিম খান, হাসানুর রেজা জিমি, মেজবাউল হক, আকাশ আলীম। কি বোর্ডে ছিলেন সেলিম খান, তবলায় প্রদীপ সাহা। উপস্থাপনায় ছিলেন শ্রমিক মনির। উপস্থিত সকলের শোক বইয়ে স্বাক্ষর দানের মাধ্যমে মি. লি কুইন ইউ স্মরণ সভার সমাপ্তি হয়। উল্লেখ্য এই শোক সভায় বাংলাদেশ হাই কমিশন এবংবিভিন্ন সোসাইটিকে আমন্ত্রণ জানানো হয়।

প্রবন্ধটি তৈরিতে, বাংলার কণ্ঠ পত্রিকার শ্রদ্ধেয় সম্পাদক জনাব মহসিন এবং বাংলার কণ্ঠ কালচারাল ফাউন্ডেশনের সভাপতি জনাব জাহাঙ্গীর আলম বাবু ভাইয়ের তথ্য সহযোগিতা নেয়া হয়েছে।

-
পেনজুরু, সিঙ্গাপুর থেকে 


এখানে প্রকাশিত প্রতিটি লেখার স্বত্ত্ব ও দায় লেখক কর্তৃক সংরক্ষিত। আমাদের সম্পাদনা পরিষদ প্রতিনিয়ত চেষ্টা করে এখানে যেন নির্ভুল, মৌলিক এবং গ্রহণযোগ্য বিষয়াদি প্রকাশিত হয়। তারপরও সার্বিক চর্চার উন্নয়নে আপনাদের সহযোগীতা একান্ত কাম্য। যদি কোনো নকল লেখা দেখে থাকেন অথবা কোনো বিষয় আপনার কাছে অগ্রহণযোগ্য মনে হয়ে থাকে, অনুগ্রহ করে আমাদের কাছে বিস্তারিত লিখুন।

Singapore, Lee, Kuan, Yew, Friend, Remembering, Community, Bangladeshi